বুধবার, ১৯ Jun ২০২৪, ১২:২৭ পূর্বাহ্ন

News Headline :
শিবপুরে জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ উদ্বোধন রাজশাহীতে কোরবানিযোগ্য পশু সাড়ে ৪ লাখের বেশি দাম চড়া হবে নালিতাবাড়ী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দুই ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী নারী পাবনার সুজানগরে আনারস প্রার্থীর ভোট না করায় মোটরসাইকেল সমর্থকদের বাড়িতে হামলা ও ভাংচুর লুটপাট পাবনা গণপূর্ত অধিদপ্তর কয়েককোটি টাকার বিনিময়ে ২য় দরদাতা বালিশকান্ডের হোতাকে কাজ দেওয়ার অভিযোগ র‌্যাব কুষ্টিয়া ক্যাম্প এর অভিযানে ১টি দেশীয় ওয়ান শুটারগান উদ্ধার গাজীপুরে তিন উপজেলায় নির্বাচিত চেয়ারম্যানরা হলেন পবায় সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি গ্রেফতার পাবনায় অগ্রনী ব্যাংক কাশিনাথপুর শাখার ভোল্ট থেকে ১০কোটি টাকা লোপাট আটক ৩ জড়িত উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ পাবনার ঈশ্বরদীতে সর্বোচ্চ ৪২.৪ ডিগ্রি তাপমাত্রার রেকর্ড

জেলা পরিষদ নির্বাচনে মীর ইকবালকে জয়যুক্ত করার লক্ষে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

Reading Time: 3 minutes

মাসুদ রানা রাব্বানী, রাজশাহী:

আগামী (১৭ অক্টোবর), আসন্ন রাজশাহী জেলা পরিষদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জাতীয় পরিষদের সদস্য ও রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল-এঁর কাপ-পিরিচ প্রতীকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করার লক্ষে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
সোমবার তানোর উপজেলার তানোর ও মুন্ডুমালা পৌরসভা, কলমা, বাধাইর, পাঁচন্দর, সরনজাই, তালন্দ, কামারগাঁ ও চাঁন্দুরিয়া ইউনিয়ন পরিষদে, পবা উপজেলার হুজুরিপাড়া, দর্শনপাড়া, হরিয়ান ইউনিয়ন পরিষদে ও মোহনপুর উপজেলার মৌগাছি ইউনিয়ন পরিষদে, বাঘা উপজেলার মনিগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদে, বাগমারা উপজেলার দীপপুর, ঝিকড়া ও বড়বিহানালী ইউনিয়ন পরিষদে এবং পুঠিয়া উপজেলার ভালুকগাছি ইউনিয়ন পরিষদে এ নির্বাচনী মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় বক্তারা বলেন, প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা’র চলমান উন্নয়ন কর্মসূচী এগিয়ে নিয়ে যেতে শেখ হাসিনা মনোনীত রাজশাহী জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবালকে কাপ পিরিচ প্রতীকে ভোট দিয়ে বিজয়ী করাই আমাদের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যে। বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানবৃন্দ, পৌরসভার মেয়রবৃন্দ, ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানবৃন্দের সাথে আলোচনা করে জেলা পরিষদের কার্যক্রম পরিচালিত করার মাধ্যমে রাজশাহী জেলা পরিষদকে দায়িত্বশীল, সেবামূলক ও গতিশীল প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তোলা হবে। তিনি বিজয়ী হলে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানবৃন্দ, পৌরসভার মেয়রবৃন্দ ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যাবৃন্দ প্রশাসনিক ও ব্যক্তিগত কোন কাজে রাজশাহী নগরীতে আসলে তাদের থাকা ও খাওয়ার ব্যবস্থা করা হবে এবং ইউনিয়ন পর্যায়ে অসচ্ছল মেধাবী শিক্ষার্থীদের আবাসনের ব্যবস্থা করবে।
বক্তারা আরো বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল বঙ্গবন্ধুর ডাকে সাড়া দিয়ে মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহন করে প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশকে স্বাধীন করেছিলেন। তিনি নির্বাচিত হলে স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের মূল্যবোধকে সমুন্নত রেখে জেলা পরিষদের কার্যক্রমকে পরিচালনা করবেন। সেখানে সরকার কর্তৃক জেলা পরিষদের জন্য যে উন্নয়ন বরাদ্দ আসবে, আপনাদের মাঝে তার সুষম বণ্টন করে জেলা পরিষদকে জনগণের প্রতিষ্ঠান হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করা হবে। বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবালের বিজয় লাভ করলে এই বিজয় হবে আপনাদের, এই বিজয় হবে জননেত্রী শেখ হাসিনা’র।
মতবিনিময় সভাগুলোতে সভাপতিত্ব করেন যথাক্রমে মুন্ডুমালা পৌরসভার মেয়র সাইদুর রহমান, কলমা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান খাদেমুন নবী বাবু চৌধুরী, বাধাইর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান, পাঁচন্দর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মতিন, সরনজাই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক খাঁন, তালন্দ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নাজিমুদ্দিন বাবু, কামারগাঁ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলে রাব্বি ফরহাদ, চাঁন্দুরিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মজিবর রহমান, হুজুরিপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা, দর্শনপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাহাদৎ হোসেন রাজিব, হরিয়ান ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মফিদুল ইসলাম বাচ্চু, মৌগাছি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আল আমিন বিশ্বাস, মনিগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম, দীপপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বিকাশ চন্দ্র ভৌমিক, ঝিকড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম, বড়বিহানালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আহমাদুর রহমান মিলন, ভালুকগাছি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তাকবীর হোসেন।
বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, রাজশাহী জেলার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অনিল কুমার সরকার, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, রাজশাহী মহানগরের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামাল, সাধারণ সম্পাদক মোঃ ডাবলু সরকার, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আমানুল ইসলাম দুদু, জাকিরুল ইসলাম সান্টু, যুগ্ম সম্পাদক ও বাঘা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ্যাড. লায়েব উদ্দিন লাবলু, মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ আহসানুল হক পিন্টু, রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ. কে. এম আসাদুজ্জামান, এ্যাড মোঃ আব্দুস সামাদ, আলফোর রহমান, বাগমারা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক উপদেষ্টা বীর মুক্তিযোদ্ধা বীরেন্দ্রনাথ সরকার, তানোর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান লুৎফর হায়দার রশীদ ময়না।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মীর ইসতিয়াক আহমেদ লিমন, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক রবিউল আলম রবি, উপ-দপ্তর সম্পাদক পংকজ দে, উপ-প্রচার সম্পাদক সিদ্দিক আলম, সদস্য নফিকুল ইসলাম সেন্টু, খায়রুল বাশার শাহীন, আলিমুল হাসান সজল, রাজশাহী জেলা যুবলীগ সভাপতি আবু সালেহ, রাজশাহী মহানগর যুবলীগ সভাপতি রমজান আলী, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগ সাধারণ সম্পাদক জেডু সরকার, তানোর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মাইনুল ইসলাম স্বপন, সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ প্রদীপ সরকার, তানোর উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগ সভাপতি সোনিয়া সরদার, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি বদিউজ্জামান বদি, মহানগর যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনির, রাজশাহী মহানগর ২৬ (পশ্চিম) নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল কাদের, আওয়ামী লীগ নেতা মুক্তার হোসেন মুক্তা, সাবেক ছাত্রনেতা আলিমুজ্জামান বকুল, যুবনেতা মনিরুজ্জামান মনির, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা সুলতানুর আরেফিন প্রমুখ। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন তানোর পৌরসভার কাউন্সিলরবৃন্দ, উপজেলা ও ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যবৃন্দ, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ এবং সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2024 DailySaraBangla24
Design & Developed BY Hostitbd.Com