মঙ্গলবার, ১৮ Jun ২০২৪, ০৯:৩৯ পূর্বাহ্ন

News Headline :
শিবপুরে জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ উদ্বোধন রাজশাহীতে কোরবানিযোগ্য পশু সাড়ে ৪ লাখের বেশি দাম চড়া হবে নালিতাবাড়ী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দুই ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী নারী পাবনার সুজানগরে আনারস প্রার্থীর ভোট না করায় মোটরসাইকেল সমর্থকদের বাড়িতে হামলা ও ভাংচুর লুটপাট পাবনা গণপূর্ত অধিদপ্তর কয়েককোটি টাকার বিনিময়ে ২য় দরদাতা বালিশকান্ডের হোতাকে কাজ দেওয়ার অভিযোগ র‌্যাব কুষ্টিয়া ক্যাম্প এর অভিযানে ১টি দেশীয় ওয়ান শুটারগান উদ্ধার গাজীপুরে তিন উপজেলায় নির্বাচিত চেয়ারম্যানরা হলেন পবায় সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি গ্রেফতার পাবনায় অগ্রনী ব্যাংক কাশিনাথপুর শাখার ভোল্ট থেকে ১০কোটি টাকা লোপাট আটক ৩ জড়িত উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ পাবনার ঈশ্বরদীতে সর্বোচ্চ ৪২.৪ ডিগ্রি তাপমাত্রার রেকর্ড

নদী শাসনের ৩০০ কোটি টাকার প্রকল্প: পদ্মার ভাঙন ঠেকাতে চরাঞ্চলে শুরু হচ্ছে ড্রেজিং

Reading Time: < 1 minute

মাসুদ রানা রাব্বানী, রাজশাহী:
রাজশাহীর বাঘা উপজেলার চরাঞ্চলে পদ্মার ভাঙন ঠেকাতে ড্রেজিং করতে চায় পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো)।
এক মাসের মধ্যেই শুরু হতে যাচ্ছে এ উপজেলার আলাইপুর থেকে চকরাজাপুর ইউনিয়নের লক্ষ্মীনগর পর্যন্ত ১২ কিলোমিটার নদী খননের কাজ।
এরইমধ্যে চরাঞ্চল পরিদর্শন করেছেন পাউবো কর্মকর্তারা।
পানি উন্নয়ন বোর্ডের বিভাগীয় প্রধান প্রকৌশলী জহিরুল ইসলাম বলেন, রাজশাহীর বাঘা উপজেলার চকরাজপুর ইউনিয়নের পদ্মার তীর রক্ষার্থে প্রস্তাবিত স্থায়ী বাঁধ নির্মাণের পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। রাজশাহী শহর রক্ষা বাঁধ অর্থাৎ টি-বাঁধ ও আই-বাঁধের মতো করে এ বাঁধ নির্মাণ করা হবে। এজন্য তাদের একটি দল এরইমধ্যে বাঘায় গিয়ে এ চরাঞ্চল এলাকাও পরিদর্শন করেছেন বলে উল্লেখ করেন।
পাউবোর প্রধান প্রকৌশলী জহিরুল ইসলাম বলেন, নদীর ড্রেজিং অর্থাৎ খনন কাজ শেষ হলে মূল স্রোতধারা নদীর কেন্দ্র বরাবর প্রবাহিত হবে। এ পয়েন্টে পদ্মা নদী আবারও নাব্যতা ফিরে পাবে। এতে ভাঙন অনেকাংশে কমে আসবে। এর সঙ্গে পদ্মা তীর রক্ষার্থে স্থায়ী বাঁধ, স্পার, টি-বাঁধ, আই-বাঁধ নির্মাণ হবে বলেও জানান এ কর্মকর্তা।
এদিকে রাজশাহী পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী শফিকুল ইসলাম শেখ বলেন, রাজশাহীর চারঘাটের ইউসুফপুর থেকে শুরু হয়ে বাঘা উপজেলার আলাইপুর হয়ে চকরাজাপুর ইউনিয়নের লক্ষ্মীনগর পর্যন্ত ১২ কিলোমিটার নদী ড্রেজিংয়ের কাজ করা হবে। এছাড়া ২০২০-২১ ও ২০২১-২২ অর্থবছরে চারঘাট ও বাঘা উপজেলার পদ্মার বাম তীরের স্থাপনাসমূহে নদী ভাঙন রক্ষা প্রকল্পের কাজ শুরু হয়েছে।
তিনি আরও বলেন, ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে রাজশাহীর এ দুই উপজেলায় ৭২২ কোটি টাকা ব্যয়ে ১৯টি প্যাকেজের কাজ চলছে। এরমধ্যে ১১টি প্যাকেজ প্রটেকশন ব্লকের ও ৮টি প্যাকেজ নদী ড্রেজিংয়ের কাজ রয়েছে। নদী শাসনের জন্য ৩০০ কোটি টাকার একটি প্রকল্পের মধ্যে বাঘার ১২ কিলোমিটার নদী ড্রেজিংও রয়েছে।
এরাই মধ্যে পদ্মার অব্যাহত ভাঙনে ৮ মাসের মধ্যে প্রায় আড়াইশ’ মানুষের বাড়ি-ঘর ও কৃষি জমি নদী গর্ভে বিলিন হয়ে গেছে। এখন আবারও পদ্মায় পানি বাড়ছে। তার সঙ্গে ভাঙনও চলছে। পদ্মা তীর রক্ষায় কাজ শুরু হলে নদী ভাঙন কমে আসবে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2024 DailySaraBangla24
Design & Developed BY Hostitbd.Com