শনিবার, ১৩ Jul ২০২৪, ১০:০০ পূর্বাহ্ন

News Headline :
রনি শেখের পাবনা জেলা ছাত্রদলের অর্থ বিষয়ক সম্পাদক পদ থেকে অব্যহতি পাবনা ঈশ্বরদীতে বলৎকারে ব্যার্থ হয়ে শিশুকে গলাটিপে হত্যা আটক ১ পাবনা সদর উপজেলা পরিষদের প্রথম সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত শিবপুরে জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ উদ্বোধন রাজশাহীতে কোরবানিযোগ্য পশু সাড়ে ৪ লাখের বেশি দাম চড়া হবে নালিতাবাড়ী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দুই ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী নারী পাবনার সুজানগরে আনারস প্রার্থীর ভোট না করায় মোটরসাইকেল সমর্থকদের বাড়িতে হামলা ও ভাংচুর লুটপাট পাবনা গণপূর্ত অধিদপ্তর কয়েককোটি টাকার বিনিময়ে ২য় দরদাতা বালিশকান্ডের হোতাকে কাজ দেওয়ার অভিযোগ র‌্যাব কুষ্টিয়া ক্যাম্প এর অভিযানে ১টি দেশীয় ওয়ান শুটারগান উদ্ধার গাজীপুরে তিন উপজেলায় নির্বাচিত চেয়ারম্যানরা হলেন

ডাবলু সরকারের আপত্তিকর ভিডিও নিয়ে রাজশাহীজুড়ে চাঞ্চল্য ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা

Reading Time: 2 minutes

নিজস্ব সংবাদদাতা, রাজশাহী:

রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকারের একটি ভিডিও নিয়ে রাজশাহীজুড়ে তোলপাড় চলছে। হচ্ছে সমালোচনা। অশ্লীল এই ভিডিওটি দলীয় নেতাকর্মীসহ বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষের ম্যাসেঞ্জার ও হোয়াটসঅ্যাপ মাধ্যমে ছড়িয়েছে। এদিকে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের এই শীর্ষ নেতার আপত্তিকর ভিডিও ছড়িয়ে পড়ায় দলীয় নেতাকর্মীদের মাঝে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে। তবে প্রকাশ্যে কেউ মুখ খুলছেন না। যদিও অশ্লীল ভিডিও ফাঁস হওয়ার পর ডাবলু সরকারের অনুসারীরা বিব্রত। নাম প্রকাশ না করার শর্তে দলীয় নেতাকর্মীদের অনেকেই জানিয়েছেন, যেহেতু রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের শীর্ষ পদের একজন নেতা ডাবলু সরকার। ছড়িয়ে পড়া তার এই ভিডিওর সঙ্গে তাৎপর্যপূর্ণভাবে দলের শৃঙ্খলা ও ভাবমূর্তির প্রশ্নটিও জড়িত। তাই নিরপেক্ষভাবে এটির সাংগঠনিক ও আইনী তদন্ত হওয়া উচিত। তা না হলে আওয়ামী লীগের ভাবমূর্তি সংকটে পড়বে। এদিকে অশ্লীল এই ভিডিওটি ছড়ানোর অভিযোগে ডাবলু সরকার শনিবার রাজশাহীর বোয়ালিয়া মডেল থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের সংশ্লিষ্ট ধারায় একটি মামলা করেছেন। ডাবলু সরকার তার দায়ের করা মামলার অভিযোগে বলেছেন তাকে রাজনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করতেই পরিকল্পিতভাবে ও কারসাজির মাধ্যমে এই ভিডিও ছড়ানো হচ্ছে। তাঁর আরও দাবি ভিডিওটি পুরোপুরি মিথ্যা।
আরএমপির বোয়ালিয়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সোহরাওয়ার্দী হোসেন মামলার হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তবে মামলায় কোন আসামির নাম উল্লেখ করা হয়নি। গত ১৭ জানুয়ারি বিকেলে ডাবলু সরকার বোয়ালিয়া মডেল থানায় এ সংক্রান্ত এজাহার দাখিল করেন। শনিবার দুপুরে অভিযোগটি মামলাটি আকারে রেকর্ড করা হয়। থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সিরাজুল ইসলাম ডাবলু সরকারের করা মামলাটি তদন্ত করছেন। তিনি জানিয়েছেন, শিগগিরই মামলার তদন্ত শুরু করবেন। তদন্তের ভিডিওটির ফরেনসিক পরীক্ষা হবে। এদিকে মামলার এজাহারে ডাবলু সরকার বলেছেন, কে বা কারা তাঁকে রাজনৈতিক ও সামাজিকভাবে হেয়প্রতিপন্ন করতে এডিট করা একটি অশ্লীল ভিডিও তৈরি করে তাঁর সম্মানহানির চেষ্টা করছে। একটি অনলাইন পোর্টালের ফেসবুক পেজে এটি ছড়ানো হয়েছে। ওই অনলাইন পোর্টালে লেখা আছে, একজন নারীর সঙ্গে তাঁর আপত্তিকর ভিডিও গোপন ক্যামেরায় ধারণ করা হয়েছে। তিনি দলীয় নেতাকর্মী ও শুভাকাঙ্খীদের মাধ্যমে ভিডিওর বিষয়টি অবগত হয়েছেন। এজাহারে আরও বলা হয়, ‘ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ও ইন্টারনেটে ভাইরাল হওয়ার কথা ওই অনলাইন পত্রিকায় লেখা থাকলেও এখন পর্যন্ত ওই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ও ইন্টারনেটে পাওয়া যায়নি। অজ্ঞাতনামা কেউ নিজ স্বার্থ হাসিলের লক্ষ্যে মিথ্যা মানহানিকর তথ্য প্রচার ও প্রচারণা করে দলীয় নেতা-কর্মীদের মধ্যে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করছে। স্থানীয়ভাবে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির উপক্রম হয়েছে। ভিডিওর বিষয়ে আওয়ামী লীগ নেতা ডাবলু সরকার বলেন, ‘ভিডিওটি এডিট করা। ‘ভিডিওতে যে ব্যক্তিকে দেখা যাচ্ছে, তার শরীরের ওপরের অংশ আমার। আমি অনেক সময় জিমে খালি গায়ে থাকি। সেখান থেকে ভিডিওটি নিয়ে অন্য ব্যক্তির শরীরের নিচের অংশের সঙ্গে জুড়ে দেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে আমি মামলা করেছি। পুলিশ তদন্ত করে ব্যবস্থা নেবে।
রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামাল আলোচিত এই ভিডিও সম্পর্কে কিছুই জানেন না উল্লেখ করে বলেন, ‘আমাকে কেউ কিছু বলে নি। আমি এ বিষয়ে কিছু জানি না বলে এড়িয়ে যান।
মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মোস্তাক হোসেন বলেন, ‘ভিডিওটি নিয়ে আমাদের বিব্রতকর অবস্থায় পড়তে হচ্ছে। ভিডিওটি সত্য না মিথ্যা তাও বুঝতে পারছি না। এজন্য আমরা ১০০ বার চাই পুলিশ তদন্ত করুক। যদি সত্য হয়, তাহলে ডাবলু সরকারের বিরুদ্ধে কেন্দ্র থেকে ব্যবস্থা নেবে। আর মিথ্যে হলে দোষীরা আইনের আওতায় আসবে’। তবে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক জিয়া হাসান আজাদ হিমেল বলেন, ‘আমি ভিডিওটা দেখি নি। যতটুকু শুনেছি বিষয়টি খুবই অস্বস্তিকর। সবারই সবদিক থেকেই সতর্ক থাকা উচিত। যেহেতু আমি দেখিনি তাই এটা বানানো বা অন্যকিছু তা বলা কঠিন’।
এদিকে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকারের এই ধরণের ভিডিও বিভিন্ন মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার বিষয়ে দলের সাংগঠনিক অবস্থান জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম কামাল হোসেন রোববার দুপুরে বলেন, নি:সন্দেহে বিষয়টি স্পর্শকাতর। আমি ভিডিওটি দেখিনি। আমি শুনেছি। ভিডিওটির সত্য কি মিথ্যা তা নিরূপণ করবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। যেহেতু ডাবলু সরকার মামলা করেছেন। দলের হাইকমান্ড যদি মনে করেন সাংগঠনিকভাবে তদন্ত হওয়া দরকার। এ বিষয়ে দলীয় হাইকমান্ড সিদ্ধান্ত নেবে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2024 DailySaraBangla24
Design & Developed BY Hostitbd.Com