শুক্রবার, ১৯ Jul ২০২৪, ০৮:৪৭ অপরাহ্ন

News Headline :
রনি শেখের পাবনা জেলা ছাত্রদলের অর্থ বিষয়ক সম্পাদক পদ থেকে অব্যহতি পাবনা ঈশ্বরদীতে বলৎকারে ব্যার্থ হয়ে শিশুকে গলাটিপে হত্যা আটক ১ পাবনা সদর উপজেলা পরিষদের প্রথম সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত শিবপুরে জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ উদ্বোধন রাজশাহীতে কোরবানিযোগ্য পশু সাড়ে ৪ লাখের বেশি দাম চড়া হবে নালিতাবাড়ী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দুই ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী নারী পাবনার সুজানগরে আনারস প্রার্থীর ভোট না করায় মোটরসাইকেল সমর্থকদের বাড়িতে হামলা ও ভাংচুর লুটপাট পাবনা গণপূর্ত অধিদপ্তর কয়েককোটি টাকার বিনিময়ে ২য় দরদাতা বালিশকান্ডের হোতাকে কাজ দেওয়ার অভিযোগ র‌্যাব কুষ্টিয়া ক্যাম্প এর অভিযানে ১টি দেশীয় ওয়ান শুটারগান উদ্ধার গাজীপুরে তিন উপজেলায় নির্বাচিত চেয়ারম্যানরা হলেন

ময়মনসিংহে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেলওয়ে স্টেশন পুণরায় চালু হচ্ছে

Reading Time: 2 minutes

কামরুল হাসান,ময়মনসিংহ :
আজ শনিবার (২৩ এপ্রিল) বাকৃবি তিন যুগ বন্ধ থাকা রেলওয়ে স্টেশন পুনরায় চালু করার লক্ষ্যে বাংলাদেশ রেলওয়ের (ইস্ট) জেনারেল ম্যানেজার মো. জাহাঙ্গীর হোসেন তার সহযোগীদের নিয়ে রেল স্টেশন পরিদর্শন করেন। এ সময় তারা রেল স্টেশন ও প্লাটফর্মের নকশা এবং আনুষাঙ্গিক বিষয় চূড়ান্ত করেন।
বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, ১৯৮৭ খ্রীষ্টাব্দে বাকৃবির রেল স্টেশনটি বন্ধ হয়ে যায়। উত্তরবঙ্গ এক্সপ্রেসের টিকেট চেকার তফাজ্জল হোসেন (টিটি) একটি কেবিনের টিকিট চেক করতে গেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের সাথে প্রথমে কথা কাটাকাটি, পরে হাতাহাতি এবং এক পর্যায়ে শিক্ষার্থীদের হাতে তিনি নিহত হন। ঘটনার পর ৩৬ ঘণ্টার জন্য সারা দেশে রেলস্টেশনগুলো বন্ধ থাকে। পরে বাকি সব রেলস্টেশন চালু হলেও প্রায় তিন যুগ ধরে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে অবস্থিত রেলস্টেশনটি আজ অবধি চালু হয়নি।
সাধারণ শিক্ষার্থীরা জানান, ট্রেনে ওঠার জন্য শিক্ষার্থীদের প্রায় ছয় কিলোমিটার যানজটের মধ্য দিয়ে শহরে যেতে হয়। স্টেশনটি চালু হলে আমরা ক্যাম্পাস থেকেই ঢাকাগামী ট্রেনে উঠতে পারব। আমি এজন্য বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানাই। রেলস্টেশনটি চালু হলে সবার ভোগান্তিই অনেকটা কমে আসবে। ময়মনসিংহ জেলার সঙ্গে আশপাশের জেলার সড়ক ব্যবস্থা ভালো নয়। সকালে পরীক্ষা থাকলে ভোর রাতে ক্যাম্পাস থেকে ময়মনসিংহ স্টেশনে যেতে হয়। আবার পরীক্ষা শেষ করে ঢাকা থেকে ফিরতে গভীর রাত হয়ে যায়। এ কারণে রেলপথই এ অঞ্চলের মানুষের যাতায়াতের একমাত্র নিরাপদ মাধ্যম। তাই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি শিক্ষক-কর্মচারীসহ সবার জন্য উপযুক্ত যোগাযোগ মাধ্যম রেলপথ।
বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রবিষয়ক উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. জাকির হোসেন বলেন, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে অবস্থিত রেল স্টেশনের আধুনিকায়নের কাজ শীঘ্রই শুরু হতে যাচ্ছে। ডিজাইনসহ সব বিষয় চূড়ান্ত হয়েছে। আশা করি, দ্রুত আমাদের ছাত্রছাত্রী, শিক্ষক, কর্মকর্তা এবং কৰ্মচারিসহ সকলে এখান থেকেই আন্তঃনগর ট্রেনসহ সকল ট্রেনে ঢাকাসহ বিভিন্ন জায়গায় যেতে পারবে। একটি শাটল ট্রেন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শহর পর্যন্ত চলার বিষয়ে মন্ত্রী মহোদয়ের সাথে কথা হয়েছে। আশাকরি সেটিও দ্রুত বাস্তবায়ন হবে।
বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, সারা দেশ থেকে আসা প্রায় সাত হাজারের বেশি শিক্ষার্থী এখানে পড়াশোনা করছে। পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারির সংখ্যা তিন হাজারের বেশি। এছাড়া ক্যাম্পাসের পাশেই রয়েছে কয়েকটি গ্রাম। যেখানে বসবাস করে প্রায় ২০ হাজারের বেশি মানুষ। সংশ্লিষ্টরা জানান, রেলস্টেশনটি চালু হলে সবার ভোগান্তিই অনেকটা কমে যাবে।
এ সময় বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন ছাত্র বিষয়ক উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. এ.কে.এম. জাকির হোসেন এবং সহযোগী ছাত্র বিষয়ক উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. মো. আজহারুল ইসলাম প্রমুখ।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2024 DailySaraBangla24
Design & Developed BY Hostitbd.Com